২ হাজার কোটি ৪৫২ কোটি নগদ লভ্যাংশ পাবে শেয়ারহোল্ডাররা | বিজনেস | Aporup Bangla | বাংলার প্রতিধ্বনি
ঢাকা | বৃহঃস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৮
বিজনেস
করোনাকালেও ব্যাংকের ভালো মুনাফা

২ হাজার কোটি ৪৫২ কোটি নগদ লভ্যাংশ পাবে শেয়ারহোল্ডাররা

বিজনেস প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৮ জুন ২০২১ ২০:৪৭ আপডেট: ২৮ জুন ২০২১ ২০:৫১

বিজনেস প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ২৮ জুন ২০২১ ২০:৪৭


ব্যাংকের লোগো/ফাইল ছিবি

করোনা মহামারির মধ্যেও ব্যাংকগুলোর মুনাফায় পোয়াবারো। পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ২৯ ব্যাংক এবার ভালো মুনাফা করেছে। সেই মুনাফা থেকে ব্যাংকগুলো এবার তাদের শেয়ারহোল্ডারদের সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা লভ্যাংশ দেবে। এর মধ্যে দুই হাজার ৪৫২ কোটি টাকা শেয়ারহোল্ডাররা পাবে নগদ লভ্যাংশ হিসেবে আর বোনাস হিসেবে পাবে ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের ১২৯ কোটি ৯৯ লাখ ৯১ হাজার ৭৪টি শেয়ার।  ১০ টাকা দরে এই শেয়ার বিক্রি করলেও বিনিয়োগকারীরা পাবে য় ১ হাজার ২৯৯ কোটি ৯৯ লাখ ১০ হাজার ৭৪০টাকা।  তবে বোনাস শেয়ারের টাকার পরিমাণ আরও বেশি হবে। কারণ, ১০ টাকা মূল্যের শেয়ার বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) বিক্রি হয় সর্বনিম্ন ১০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৪৯ টাকায়। অর্থাৎ কেউ যদি বোনাস শেয়ার বিক্রি করেন তবে দ্বিগুণ মুনাফা পাবেন। 

ব্যাংকগুলোর ২০২০ সালের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের এ লভ্যাংশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে জানা গেছে। 

বিদায়ী বছরে (২০২০ সাল) ভালো লভ্যাংশের পর চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে (অর্থাৎ ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত) ব্যাংকগুলোর মুনাফা গত বছরের চেয়ে বেড়েছে। এতে ব্যাংকের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহও বেড়েছে। ফলে এসব শেয়ারের দামও বাড়তি। 

কোন ব্যাংক কত লভ্যাংশ দেবে

ব্যাংকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি লভ্যাংশ দেবে ইস্টার্ন ব্যাংক। ব্যাংকটি শেয়ারহোল্ডারদের শেয়ারপ্রতি এক টাকা ৭৫ পয়সা করে মোট ১৪২ কোটি ছয় লাখ টাকার নগদ লভ্যাংশ দেবে। পাশাপাশি সাড়ে ১৭ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। সেই হিসাবে ১৪ কোটি ২০ লাখ ৬৪ হাজার ৯২১টি শেয়ার লভ্যাংশ হিসাবে দেবে।

একইভাবে ডাচ-বাংলা ব্যাংক শেয়ারহোল্ডারদের দেড় টাকা করে ৮২ কোটি ৫০ লাখ টাকা নগদ আর আট কোটি ২৫ লাখ শেয়ার বোনাস হিসাবে দেবে। সিটি ব্যাংক শেয়ারহোল্ডারদের ১৭৭ কোটি ৮৭ লাখ টাকা নগদ এবং পাঁচ কোটি আট লাখ ১৯ হাজার ৩৩৩টি শেয়ার দেবে।

প্রিমিয়ার ব্যাংক বিনিয়োগকারীদের ১২১ কোটি ২৯ লাখ টাকার পাশাপাশি সাত কোটি ২৭ লাখ ৭২ হাজার ৩৭৬টি শেয়ার বোনাস হিসাবে দেবে। তবে, যমুনা ব্যাংক বিনিয়োগকারীদের শুধুমাত্র নগদ ১৩১ কোটি ১১ লাখ টাকা দেবে। একইভাবে প্রাইম ব্যাংক শেয়ারহোল্ডারদের ১৬৯ কোটি ৮৪ লাখ টাকা, আল-আরাফাহ ব্যাংক ১৫৯ কোটি ৭৪ লাখ টাকা, ইসলামী ব্যাংক ১৬০ কোটি ৯৯ লাখ টাকা, পূবালী ব্যাংক ১২৮ কোটি ৫৪ লাখ টাকা, সাউথইস্ট ব্যাংক ১১৮ কোটি ৮৯ লাখ টাকা এবং ব্যাংক এশিয়া শেয়ারহোল্ডারদের ১১৬ কোটি ৫৯ টাকা নগদ লভ্যাংশ দেবে।

এদিকে, ২০২০ সালে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য শুধু বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে চারটি ব্যাংক। এর মধ্যে আইএফআইসি ব্যাংক ৫ শতাংশ হারে আট কোটি নয় লাখ ৯৩ হাজার ৬৯৩টি শেয়ার দেবে শেয়ারহোল্ডারদের। মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক দেবে সাত কোটি ৩৮ লাখ ৬৩ হাজার ২৪১টি শেয়ার, রূপালী ব্যাংক দেবে চার কোটি ১৪ লাখ ১৬ হাজার ৮৬৩টি শেয়ার এবং এবি ব্যাংক দেবে তিন কোটি ৯৮ লাখ এক হাজার ৮৪২টি শেয়ার।

এছাড়া ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ বাবদ শেয়ারহোল্ডারদের মোট ১৩২ কোটি ৫৯ লাখ টাকা দেবে। একইসঙ্গে পাঁচ শতাংশ বোনাস বাবদ ছয় কোটি ৬২ লাখ ৯৩ হাজার ৯২৪টি শেয়ার দেবে। এক্সিম ব্যাংক পাঁচ কোটি ৯২ লাখ টাকা নগদ এবং তিন কোটি ৫৩ লাখ ছয় হাজার ২৭৭টি শেয়ার দেবে।

অন্যদিকে, মার্কেন্টাইল ব্যাংক লভ্যাংশ হিসাবে নগদ ৯৮ কোটি ৪০ লাখ টাকার পাশাপাশি চার কোটি ৯২ লাখ ৮১১টি শেয়ারও দেবে। একইভাবে এনসিসি ব্যাংক ৭০ কোটি ৯৪ লাখ টাকা নগদ আর সাত কোটি নয় লাখ ৪৪ হাজার ৪৮৬টি বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ হিসাবে দেবে। শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক ৬৮ কোটি ৬১ লাখ টাকা নগদের পাশাপাশি চার কোটি ৯০ লাখ চার হাজার ৬১৭টি শেয়ার, ট্রাস্ট ব্যাংক ৬৪ কোটি ৩৩ লাখ টাকা নগদ এবং ছয় কোটি ৪৩ লাখ ২৯ হাজার ৫৯৮টি শেয়ার, উত্তরা ব্যাংক ৬২ কোটি ৭৪ লাখ টাকা নগদ আর ছয় কোটি ২৭ লাখ ৪২ হাজার ৫৯৯টি শেয়ার, ইউসিবি ব্যাংক ৬০ কোটি ৮৮ লাখ টাকার নগদ আর ছয় কোটি আট লাখ ৭৬ হাজার ৪৫টি শেয়ার, ঢাকা ব্যাংক তিন কোটি ৭৫ লাখ টাকা নগদ এবং পাঁচ কোটি ৩৭ লাখ ৫২ হাজার ৩৪৪টি শেয়ার লভ্যাংশ হিসেবে শেয়ারহোল্ডারদের দেবে।

এছাড়া ওয়ান ব্যাংক শেয়ারহোল্ডারদের ৫৩ কোটি ১২ লাখ টাকা নগদ এবং চার কোটি ৮৬ লাখ ৯৪ হাজার ৫২টি শেয়ার লভ্যাংশ হিসাবে দেবে। এনআরবিসি ব্যাংক ৫২ কোটি ৬৯ লাখ টাকা নগদ আর তিন কোটি ৫১ লাখ ২৫ হাজার ৮৫০টি শেয়ার, ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক ৪৭ কোটি ৪৪ লাখ টাকা নগদ আর চার কোটি ৭৪ লাখ ৩৮ হাজার ১০টি শেয়ার, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক ৪৬ কোটি ৯০ লাখ টাকা নগদ আর চার কোটি ৬৯ লাখ ৪২১টি শেয়ার এবং স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক ২৫ কোটি ১৫ লাখ টাকা নগদ আর দুই কোটি ৫১ লাখ ৪৯ হাজার ৭৭০টি শেয়ার লভ্যাংশ হিসাবে শেয়ারহোল্ডারদের দেবে।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top