নারী শিক্ষায় বেগম রোকেয়ার অবদান অপরিসীম | দেশজুড়ে | Aporup Bangla | বাংলার প্রতিধ্বনি
ঢাকা | বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮
দেশজুড়ে

নারী শিক্ষায় বেগম রোকেয়ার অবদান অপরিসীম

অপরূপ বাংলা প্রতিবেদক, খুলনা

প্রকাশিত: ৯ ডিসেম্বর ২০২০ ২০:১২ আপডেট: ১০ ডিসেম্বর ২০২০ ০৯:৫৪

অপরূপ বাংলা প্রতিবেদক, খুলনা | প্রকাশিত: ৯ ডিসেম্বর ২০২০ ২০:১২


রোকেয়া পদক প্রদান অনুষ্ঠানে খুলনা সিটি মেয়র

নারী শিক্ষার উন্নয়ন ও নারী মুক্তি আন্দোলনে বেগম রোকেয়ার অবদান অপরিসীম। পুরুষের পাশাপাশি নারীরা আজ সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে। কর্মক্ষেত্রে নারীদের নির্বিঘ্নে কাজ করার পরিবেশ তৈরি করা হয়েছে। উন্নয়নের সকল ক্ষেত্রে নারীকে সম্পৃক্ত করা হচ্ছে।

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা এবং শ্রেষ্ঠ জয়িতাদের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

বুধবার দুপুরে মহানগরীর সিএসএস আভা সেন্টারে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সিটি মেয়র আরও বলেন, ঊনবিংশ শতাব্দীর কুসংস্কারাচ্ছন্ন রক্ষণশীল সমাজের শৃঙ্খল ভেঙ্গে বেগম রোকেয়া নারী জাতির মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও নারীদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন। তাঁর অক্লান্ত পরিশ্রমে বর্তমানে বাংলাদেশে নারীদের জন্য অনুকূল পরিবেশ বিরাজ করছে। রাষ্ট্র পরিচালনা, রাজনীতি, চাকরি, প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলাসহ সকল ক্ষেত্রে আজ নারীদের পদচারণা রয়েছে।

খুলনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন কেসিসি’র প্যানেল মেয়র অ্যাডভোকেট মেমরি সুফিয়া রমহান শুনু এবং প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর খুলনার আঞ্চলিক পরিচালক আফরোজা খান মিতা। অনুষ্ঠানে স্বাগত জানান মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক নার্গিস ফাতেমা জামিন। এসময় বিভিন্ন নারী সংগঠনের নেত্রী ও শ্রেষ্ঠ জয়িতারা তাদের অনুভূতি প্রকাশ করেন।   

২০১৯-২০ অর্থ বছরে খুলনা সিটি কর্পোরেশন পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ জয়িতা নির্বাচিত হলেন- অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী ক্যাটাগরীতে ফৌজিয়া সুলতানা এবং সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় কাজী নাসরিন আক্তার। এছাড়া জেলা পর্যায়ে পাঁচটি ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠ জয়িতা  হলেন- অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী ক্যাটাগরীতে ফৌজিয়া সুলতানা, শিক্ষা ও চাকুরী ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী ক্যাটাগরিতে পাইকগাছা উপজেলার মোসাম্মাৎ সুরাইয়া বানু, সফল জননী ক্যাটাগরীতে পাইকগাছা উপজেলার রাবেয়া বেগম, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করা ফুলতলা উপজেলার তাসমিনা নার্গিস এবং সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় ডুমুরিয়া উপজেলার অঞ্জনা বালা বিশ্বাস।

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর খুলনা কার্যালয় এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top