করোনাকালে বিসিএস পরীক্ষার ভিন্ন চিত্র | শিক্ষা | Aporup Bangla | বাংলার প্রতিধ্বনি
ঢাকা | বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮
শিক্ষা

করোনাকালে বিসিএস পরীক্ষার ভিন্ন চিত্র

অপরূপ বাংলা প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৯ মার্চ ২০২১ ১০:২৫ আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৩:১৬

অপরূপ বাংলা প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ১৯ মার্চ ২০২১ ১০:২৫


করোনাকালে বিসিএস পরীক্ষার ভিন্ন চিত্র

সরকারি চাকরি করে ভালো একটা ক্যারিয়ারের আশায় অনেকেরই লক্ষ্য থাকে বিসিএসের। সে মোতাবেক প্রতিবছর লাখো পরীক্ষার্থী অংশ নেন এ পরীক্ষায়। বিরাট আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয় এ পরীক্ষা। তবে এ বছর করোনা পরিস্থিতির কারণে অন্যরকম এক আবহে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা। 

একদিকে করোনা পরিস্থিতি, অন্যদিকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও দেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আগত বিদেশি ভিভিআইপিদের গমনাগমনের জন্য ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কে যান চলাচল নিয়ন্ত্রিত থাকবে। এ জন্য পরীক্ষার্থীদের প্রতি আগেভাগে নির্দেশনা ছিল হাতে সময় নিয়ে কেন্দ্রে যাওয়ার। 

সকাল ১০টা থেকে পরীক্ষা শুরুর কথা থাকলেও সে জন্য সকাল ৬টার পরই পরীক্ষার্থীরা বাসা থেকে বের হয়েছেন। আবার সকালে বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছ, দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে কেন্দ্রে ঢুকতে হয়েছে তাদের। পরীক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেখা গেছে। রাজধানীর মিরপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও বালক উচ্চ বিদ্যালয় এবং রূপনগর সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

সকাল ১০টায় রাজধানীসহ দেশের ৮টি বিভাগীয় শহরে ৩৫৯টি কেন্দ্রে একযোগে শুরু হয়েছে এ পরীক্ষা। দুই ঘণ্টাব্যাপী এ পরীক্ষা চলবে দুপুর ১২টা পর্যন্ত।

গেল কয়েকদিন করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে এ পরীক্ষা পিছিয়ে দিতে হাইকোর্টে রিট পর্যন্ত করা হয়েছিল। তবে তা খারিজ করে দিয়েছেন আদালত। 

২০১৯ সালের ২৭ নভেম্বর ৪১তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পিএসসি। এতে বিভিন্ন পদে ২ হাজার ১৩৫ কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী সবচেয়ে বেশি নিয়োগ দেওয়া হবে শিক্ষা ক্যাডারে। এ ক্যাডারে ৯১৫ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। এরমধ্যে বিসিএস শিক্ষায় প্রভাষক ৯০৫ জন, কারিগরি শিক্ষা বিভাগে প্রভাষক নেওয়া হবে ১০ জন।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top