ভারতে করোনার নতুন ধরন, শঙ্কায় বাংলাদেশ | জাতীয় | Aporup Bangla | বাংলার প্রতিধ্বনি
ঢাকা | মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮
জাতীয়

ভারতে করোনার নতুন ধরন, শঙ্কায় বাংলাদেশ

অপরূপবাংলা ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৬ এপ্রিল ২০২১ ১৪:৫৬ আপডেট: ২৬ এপ্রিল ২০২১ ১৪:৫৮

অপরূপবাংলা ডেস্ক | প্রকাশিত: ২৬ এপ্রিল ২০২১ ১৪:৫৬


ছবি : সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের নতুন দুটি ধরন পাওয়া গেছে ভারতে। ধরন দুটিই দ্রুত ছড়ায়। বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত এই ধরনের উপস্থিতি মেলেনি। তবে বাংলাদেশ নতুন ধরন থেকে শঙ্কামুক্ত নয় বলে মনে করছেন অণুজীব বিজ্ঞানী, গবেষক ও জনস্বাস্থ্যবিদেরা।

পশ্চিমবঙ্গকে নিয়ে বেশি চিন্তিত বাংলাদেশি বিজ্ঞানীরা। ভাইরাসবিদ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য নজরুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের দীর্ঘ সীমান্ত রয়েছে। অনেক দূরের ধরন বাংলাদেশে এসেছে। তাই সঠিক ব্যবস্থা না নিলে এটিও বাংলাদেশে আসতে পারে। স্থলবন্দরের কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থা অধ্যাপক নজরুলের কাছে শঙ্কার বড় কারণ। তিনি বলছিলেন, আকাশপথে আসা যাত্রীদের কোয়ারেন্টিন মোটামুটি হলেও স্থলবন্দরে এ ব্যবস্থা আশাব্যঞ্জক নয়। তাই এ পথে দ্রুত কঠোর কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।

ভারতের নতুন দুই ধরনের ভাইরাস ঠেকাতে বাংলাদেশকে আরও বেশি সাবধান হতে হবে বলে জানিয়েছেন- অণুজীব বিজ্ঞানী, গবেষক ও জনস্বাস্থ্যবিদরা। দুটি ধরনের মধ্যে একটি বাংলাদেশের কাছের পশ্চিমবঙ্গে সক্রিয় রয়েছে। তাই সীমান্তে কড়াকড়ি, কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করা এবং প্রতিনিয়ত জিন নকশার উন্মোচন ও নজরদারি করতে হবে। বিশেষজ্ঞদের অভিমত, এই দুই ধরনের একটিও বাংলাদেশে ক্রিয়াশীল হলে তা ভয়াবহ পরিণতি বয়ে আনবে।

ভারতের ধরন ঠেকাতে বাংলাদেশ আকাশ ও স্থলপথে ভারতের সঙ্গে সব ধরনের চলাচল বন্ধ রেখেছে। ইউরোপে ভারতীয় ধরন নিয়ে সতর্কতা জারি হয়েছে। জার্মানিসহ আরও কয়েকটি দেশ আজ সোমবার থেকে ভারতের সঙ্গে আকাশপথে যোগাযোগ বন্ধ ঘোষণা করেছে।

বাংলাদেশকে নিয়ে দুশ্চিন্তার কারণ ভারতের মহারাষ্ট্র ও দিল্লির পাশাপাশি ব্যাপক হারে করোনা বাড়ছে পার্শ্ববর্তী রাজ্য পশ্চিমবঙ্গে। পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের ওয়েবসাইট অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ হাজার ৮৫৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৫৯ জন। দুই সপ্তাহ আগের তুলনায় সংক্রমণের হার বেড়েছে ২৫৩ শতাংশ। ভারতে তিন দিন ধরে করোনার সংক্রমণ একের পর এক রেকর্ড সৃষ্টি করছে। বিশ্বের কোনো দেশে এক দিনে সর্বোচ্চসংখ্যক করোনা রোগী শনাক্তের রেকর্ডটি গত বৃহস্পতিবারের আগপর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের দখলে ছিল। দেশটিতে গত জানুয়ারিতে এক দিনে সর্বোচ্চ ২ লাখ ৯৭ হাজার ৪৩০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। বৃহস্পতিবার ভারতে ৩ লাখ ১৪ হাজার ৮৩৫ জন রোগী শনাক্ত হন। শনাক্তের নিরিখে ভারত সেদিন রেকর্ড ভাঙে।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top