তিন দশকে মাতৃমৃত্যু কমেছে ৭১ শতাংশ, করোনায় বেড়েছে | জাতীয় | Aporup Bangla | বাংলার প্রতিধ্বনি
ঢাকা | শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮
জাতীয়

তিন দশকে মাতৃমৃত্যু কমেছে ৭১ শতাংশ, করোনায় বেড়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৮ মে ২০২১ ১০:২১ আপডেট: ২৩ অক্টোবর ২০২১ ০০:৩৩

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ২৮ মে ২০২১ ১০:২১


ফাইল ফটো

করোনাভাইরাস মহামারিকালে সরকারি সেবা প্রতিষ্ঠানে প্রসব–পূর্ব সেবা আগের বছরের তুলনায় কম নিয়েছেন মায়েরা। ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২০ সালে প্রসব–পূর্ব ন্যূনতম ৪বার সেবা নেওয়ার হার এক–চতুর্থাংশ কম ছিল। এ সময়ে মাতৃমৃত্যু বেড়েছে ১৭ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, জেলা হাসপাতাল ও মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২০১৯ সালে ৯৬৭ জন ও ২০২০ সালে ১ হাজার ১৩৩ জন মায়ের প্রসবকালীন মৃত্যু হয়েছে। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে এপ্রিল মাস পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪৮২ জন মায়ের। গত বছরের জানুয়ারি থেকে এ বছরের এপ্রিল পর্যন্ত মাতৃমৃত্যুর যত ঘটনা ঘটেছে, এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি এপ্রিলে মারা গেছেন ২২৮ জন।

দেশে ৯০-এর দশকে প্রতি লাখে জীবিত শিশু জন্ম দিতে গিয়ে ৫৭৪ জন সন্তানসম্ভবা নারীর মৃত্যু হতো। ২০১৯ সালে এসে লাখে ১৬৫ জনে দাঁড়ায়। এ হিসাবে মাতৃমৃত্যু কমেছে ৭০ শতাংশের বেশি। বাংলাদেশ ম্যাটারনাল মর্টালিটি অ্যান্ড হেলথ কেয়ার সার্ভে (বিএমএমএস), স্যাম্পল ভাইটাল রেজিস্ট্রেশন সিস্টেম (এসভিআরএস) এবং ইউএন (ইউনাইটেড নেশন) ইস্টিমেট সূত্রে এ সব তথ্য জানা গেছে।

আগের তুলনায় মাতৃমৃত্যু কমলেও এখনও সন্তান জন্ম দিতে গিয়ে প্রতি বছর ৪ হাজার ৭২০ জন গর্ভবতী মায়ের মৃত্যু হয়। সে হিসেবে প্রতিদিন গড়ে প্রায় ১৩ জন অর্থাৎ প্রতি দুই ঘণ্টায় একজন গর্ভবতী মায়ের মৃত্যু হয়। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অনুযায়ী, দেশে মাতৃমৃত্যু হার লাখে ৭০ জনে নামিয়ে আনার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে সরকার। গত এক বছরেরও বেশি সময় ধরে বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে গর্ভবতী মায়ের সেবা কিছুটা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

এমনই এক পরিস্থিতির মধ্যে ২৮ মে বিশ্ব ‘নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস’ পালিত হচ্ছে। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘করোনাকালে গর্ভকালীন সেবা নিন, মাতৃ ও শিশুমৃত্যু রোধ করুন’।

স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, বিভিন্ন পরিসংখ্যান অনুযায়ী ১৯৮৬-৯০ সালে প্রতি লাখে ৫৭৪ জন, ১৯৯১-৯৫ সালে ৪৮৫ জন, ১১৯৬ সালে ৪৪৮ জন, ১৯৯৮-২০০০ সালে ৩২২ জন, ২০০৭ সালে ২৯৮ জন, ২০১০ সালে ১৯৪ জন, ২০১৫ সালে ১৭৬ জন, ২০১৮ সালে ১৬৯ জন এবং ২০১৯ সালে ১৬৫ জন গর্ভবতী মায়ের মৃত্যু হয়।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top