টিকটক হৃদয়কে ফেরানোর প্রক্রিয়া চলছে | জাতীয় | Aporup Bangla | বাংলার প্রতিধ্বনি
ঢাকা | মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮
জাতীয়

টিকটক হৃদয়কে ফেরানোর প্রক্রিয়া চলছে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৯ মে ২০২১ ০১:২৩ আপডেট: ২৯ মে ২০২১ ০১:২৬

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ২৯ মে ২০২১ ০১:২৩


ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশি তরুণীকে ভারতের কেরালা রাজ্যে নিয়ে যৌন নির্যাতন চালান স্বদেশি তরুণ রিফাতুল ইসলাম হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয় (২৬)। এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও অনলাইনে ভাইরাল হয়েছে। সেখানে হৃদয় গ্রেপ্তার হয়েছেন, তাকে দেশে ফেরানোর প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। ভুক্তভোগী তরুণীকেও ফেরানোর আনার চেষ্টা চলছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের ডিসি মো. শহিদুল্লাহ শুক্রবার (২৮ মে) বিষয়টি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, আমরা ভারতীয় গণমাধ্যম, সাংবাদিক ও বেঙ্গালুরু পুলিশের মাধ্যমে নিশ্চিত হয়েছি যে, তরুণীকে নির্যাতনের ঘটনায় জড়িতরা পালানোর চেষ্টা করলে স্থানীয় পুলিশের গুলিতে দুজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি বিশ্লেষণ করে একজনের সঙ্গে বাংলাদেশি একটি ছেলের ছবি মিলে যায়। ওই ছেলের নাম টিকটক হৃদয়। অভিযুক্ত ওই তরুণ মগবাজারের বাসিন্দা। বর্তমানে পুলিশ সদর দফতরের মাধ্যমে ভারতের সঙ্গে যোগাযোগ করে আইনানুগ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ভুক্তভোগী এবং জড়িত অপরাধীদের দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে।

এর আগে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে দেখা যায়, ২০-২২ বছরের একজন তরুণীকে বিবস্ত্র করে ৩-৪ জন যুবক শারীরিক ও বিকৃতভাবে যৌন নির্যাতন করছে।

বাংলাদেশি ওই তরুণীকে ভারতের কেরালা রাজ্যে নিয়ে গিয়ে যৌন নির্যাতনের ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়। ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে আসামিদের গ্রেফতারে অভিযানে নামে ভারতের পুলিশ। অভিযুক্তরা পালানোর সময় পুলিশের ছোড়া গুলিতে বাংলাদেশি নাগরিক টিকটক হৃদয়সহ মোট দুইজন গুলিবিদ্ধ হয়। এই ঘটনার বিষয়ে বাংলাদেশ পুলিশের এনসিবি শাখার কর্মকর্তারা ভারতের দিল্লির এনসিবি শাখার কর্মকর্তাদের সঙ্গে ই-মেইলে যোগাযোগ চালিয়ে যাচ্ছে।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top