নারীদের অর্থনৈতিক স্বাধীনতা সবচেয়ে বড় স্বাধীনতা | জাতীয় | Aporup Bangla | বাংলার প্রতিধ্বনি
ঢাকা | বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮
জাতীয়
বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন ও পদক প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী

নারীদের অর্থনৈতিক স্বাধীনতা সবচেয়ে বড় স্বাধীনতা

অপরূপ বাংলা প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ৯ ডিসেম্বর ২০২০ ১৩:৩৫ আপডেট: ৯ ডিসেম্বর ২০২০ ১৩:৩৬

অপরূপ বাংলা প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ৯ ডিসেম্বর ২০২০ ১৩:৩৫


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

নারী শিক্ষায় বেগম রোকেয়ার অবদানের কথা স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বেগম রোকেয়ার জন্ম না হলে দেশের মুসলিম মেয়েরা পড়ালেখা শিখতে পারতো কিনা সন্দেহ। গণভবন থেকে বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন ও পদক প্রদান অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এসব কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

সেই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী কর্মজীবী নারীদের জন্য রাজধানীর বাইরে জেলা উপজেলায়ও নারী হোস্টেল করার ঘোষণা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, নারীদের অর্থনৈতিক স্বাধীনতা সবচেয়ে বড় স্বাধীনতা। সেই লক্ষ্যেই নারী উন্নয়ন এবং তৃণমূল পর্যন্ত নারীর ক্ষমতায়নের জন্য কাজ করছে সরকার। এ বছর ৫ নারীকে রোকেয়া পদক দেওয়া হয়েছে।

এ বছর বেগম রোকেয়া পদক পেলেন নারী শিক্ষায় প্রফেসর ড. শিরিন আক্তার, পেশাগত উন্নয়নের মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়নের জন্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডাক্তার নাজমা বেগম, মঞ্জুলিকা চাকমা (নারীর আর্থ সামাজিক উন্নয়ন), বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরিদা আক্তার (নারীর অধিকারে অবদান), সাহিত্য ও সংস্কৃতির মাধ্যমে নারী জাগরণের জন্য বেগম মুশতারি শফি । ১৮৮০ সালের ৯ ডিসেম্বর রংপুরের পায়রাবন্দে জন্মগ্রহণ করেন বাঙালি নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়া। প্রতিবছর নারী ক্ষমতায়ন ও অগ্রগতিতে অবদান রাখা বিশিষ্ট নারীদের বেগম রোকেয়া পদক দেওয়া হয়।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top