রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ , ১৫ মাঘ ১৪২৯

modhura
Aporup Bangla

পল্লবী স্টেশনে থামছে মেট্রোরেল

জাতীয়

অপরূপ বাংলা প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১১:৫০, ২৫ জানুয়ারি ২০২৩

সর্বশেষ

পল্লবী স্টেশনে থামছে মেট্রোরেল

ছবি- ইন্টারনেট

রাজধানীর পল্লবী স্টেশনে থামছে মেট্রোরেল। উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশে বিরতিহীন ট্রেন চালু হওয়ার পর এবার পল্লবী স্টেশনে বিরতি দিয়ে যাত্রী পরিবহন শুরু হয়েছে। বুধবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল ৮টা ৩৪ মিনিটে প্রথমবারের মতো পল্লবী স্টেশনে ট্রেন থামে এবং যাত্রী নিয়ে ৩০ সেকেন্ড পরেই আগারগাঁওয়ে চলে যায়।

এদিন দেখা যায়, সকাল ৮টার আগেই স্টেশনের তিনটি দরজা খুলে দেয়া হয় এবং যাত্রীরা স্টেশনে প্রবেশ করেন। স্টেশন কন্ট্রোলার মাসুদ রানা জুয়েল বাংলানিউজকে বলেন, উত্তরা স্টেশন থেকে সকাল ৮টা ৩৪ মিনিটে আমাদের স্টেশনে এসে ৩০ সেকেন্ড দাঁড়িয়ে যাত্রী নিয়ে আগারগাঁওয়ের দিকে যাত্রা করেছে। সরেজমিনে পল্লবী স্টেশনে দেখা যায়, এখানে কোনো ভিড় নেই।

স্টেশনের দুই অংশের ছয়টি টিকিট বিক্রয় মেশিনের একটি বন্ধ রাখা হয়েছে। এছাড়াও সরকারি দলের অঙ্গ সংগঠনের (ছাত্রলীগের) কর্মীরা স্টেশনে আসা যাত্রীদের গোলাপ ফুল, চকলেট ও তাদের নেতার নামের লিফলেট দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। পাশাপাশি খুচরা টাকা না থাকায় মেশিন থেকে টিকিট সংগ্রহ করতে না পারায় অনেককে কাউন্টারে পাঠাতে দেখা যায়। স্টেশনে টিকিট বিক্রয় মেশিনে কোন কোন মুদ্রা প্রবেশ করানো যাবে, সেই নির্দেশনা সম্বলিত ছবি টানিয়ে রাখতে দেখা যায়।

দায়িত্বরত রোভার স্কাউট মো. ওয়াহিদুজ্জামান সোহাগ বলেন, মেশিনের ভেতরে খুচরা টাকা না থাকায় আমরা কাউন্টারে পাঠাচ্ছি। এছাড়া ২০১৯ সালের পরের সময়ে ছাপানো টাকাও নিচ্ছে না মেশিন। তবে যাত্রী কম থাকায় এ নিয়ে স্টেশনে অবশ্য কোনো ভোগান্তি ছিলো না। মিরপুর ডিওএইচএসের বাসিন্দা সুমাইয়া আক্তার বলেন, আমার অফিস কারওয়ান বাজারে। মেট্রোরেলের এই স্টেশনটি চালু হওয়ায় আমার জন্য সুবিধা হলো। এখন তাড়াতাড়ি অফিস যেতে পারবো।

এই বেসরকারি কর্মকর্তা আরও বলেন, টিকিট সংগ্রহ করতে আজ কোনো ভোগান্তি হয়নি। এখন দেখার বিষয় এখান থেকে রওনা দিয়ে আগারগাঁও নেমে আমার অফিস যেতে কত সময় লাগছে। পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেবো নিয়মিত যাবো কি, যাবো না। যাত্রী ছাড়া অনেকে ঘুরতেও এসেছেন এ স্টেশনে। এর মধ্যে একজন মিরপুরের বাসিন্দা এমএ মৃধা সোহাগ। তিনি বলেন, আজ স্টেশনটি চালু হলো। আমি দেখতে এসেছি।

পাশাপাশি চেয়েছিলাম এমআরটি পাস সংগ্রহ করবো। কিন্তু এসে শুনলাম, সকালে দেওয়া হবে না। আমাকে আবার বিকেল ৩টায় আসতে হবে। টিকিট বিক্রয় মেশিনগুলো বন্ধের বিষয়ে জানতে চাইলে মেট্রোরেল পরিচালনাকারী ঢাকা ম্যাস র‍্যাপিড ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপক (পরিচলন) ইফতেখার হোসাইন বাংলানিউজকে বলেন, মেশিনগুলো নতুন।

ব্যবহারকারীরা পুরোনো টাকা দেওয়ায় মেশিন অকার্যকর হয়ে পড়ছে। এগুলো ঠিক হয়ে যাবে। যদিও এদিন সকালে যাত্রী প্রবেশের আগেই একটি টিকিট মেশিন অকার্যকর দেখা যায়। এর আগে, গত ২৮ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করার পর দিন ২৯ ডিসেম্বর থেকে যাত্রী চলাচল শুরু হয় মেট্রো রেলে।

এনসি/

সর্বশেষ

জনপ্রিয়