শেষ ম্যাচেও বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের জয় | খেলাধুলা | Aporup Bangla | বাংলার প্রতিধ্বনি
ঢাকা | বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ৫ কার্তিক ১৪২৮
খেলাধুলা

শেষ ম্যাচেও বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের জয়

অপরূপ বাংলা প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০২১ ২০:২৫ আপডেট: ২০ অক্টোবর ২০২১ ১২:৩৭

অপরূপ বাংলা প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০২১ ২০:২৫


আগেই সিরিজ জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। ফলে সিরিজের শেষ ম্যাচটা আয়ারল্যান্ড উলভসের জন্য পরিণত হয়েছিল সম্মান রক্ষার লড়াইয়ে।

রোববার (১৪ মার্চ) সিরিজের পঞ্চম ও শেষ আন-অফিসিয়াল ওয়ানডে ম্যাচটি ৬ রানে জিতেছে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল।  

মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরুতে ব্যাট করে সব উইকেট হারিয়ে ২৬০ রান তুলেছিল স্বাগতিকরা। জবাবে পুরো ৫০ ওভার খেলেও এক উইকেট হাতে রেখে ২৫৪ রানে থামে আইরিশদের ইনিংস।

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের মাহমুদুল হাসান জয় দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহের ভিত্তি গড়ে দেন। তিনে নামা এই ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে আসে ১৩৫ বলে ১২৩ রান। ৯ চার ও ৩ ছক্কায় সাজানো ইনিংসটি শেষ হয় রান আউটের মাধ্যমে। এছাড়া ৩১ বলে ৪১ রান করেন ওপেনার আনিসুল ইসলাম ইমন। উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন করেন ৩৩ রান।

বল হাতে আইরিশদের মার্ক অ্যাডায়ারের নেন ৩ উইকেট। ২টি করে উইকেট গেছে রুহান প্রিটোরিয়াস ও অধিনায়ক হ্যারি টেক্টরের দখলে।  

এদিকে জবাব দিতে নেমে শুরুতেই ওপেনার জেরেমি ললোরের (০) উইকেট হারায় আইরিশরা। কিন্তু এরপর অ্যাডায়ারকে নিয়ে স্টিফেন ডেহানি প্রায় একশ ছুঁইছুঁই জুটি গড়েন। তবে ৬৩ বলে ৪৫ রান করে আদায়র বিদায় নিলে পথ হারায় দলটি। এরপর সেঞ্চুরির দিকে ছুটতে থাকা ডেহানিও (৮১) বিদায় নিলে বিপদ বাড়ে। শেষদিকে ৩৮ বলে ৩৫ রানের ইনিংস খেলে জয়ের আশা বাড়িয়েছিলেন নেইল রক। কিন্তু তার বিদায়ের পর সেই আশাও নিভে যায়। অল্পের জন্য হার মানতে হয় আইরিশদের। শেষ ওভারে ১১ রান দরকার ছিল আইরিশদের। শেষ বলে সমীকরণ গিয়ে ঠেকে ৭ রানে। কিন্তু রাজার বলে ব্যাট ছোঁয়াতে পারেননি বেন হোয়াইট। লেগ বাই থেকে ১টা রান এলেও অন্তত একটা ম্যাচে হার এড়ানোর সুযোগ হলো হাতছাড়া।

বল হাতে ৩ উইকেট তুলে নিয়েছেন ইমার্জিং দলের অধিনায়ক সাইফ হাসান। ২টি করে উইকেট গেছে শফিকুল ইসলাম, তানভীর ইসলামের ঝুলিতে। আর ১টি করে উইকেট নিয়েছেন রেজাউর রহমান রাজা ও শামিম হাসান।

দু'দলের মধ্যকার প্রথম ম্যাচটি পরিত্যক্ত হয় আইরিশ এক খেলোয়াড় করোনা পজিটিভ হওয়ায়। এরপর দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৪ উইকেটে ও তৃতীয় ওয়ানডেতে ৬ উইকেটে জয় লাভ করে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। চতুর্থ ওয়ানডেতে জয় আসে ৮ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে। আর পঞ্চমটি এলো ৬ রানের ব্যবধানে। ফলে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ৪-০ ব্যবধানে জিতে নিল স্বাগতিক দল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ ইমার্জিং দল: ৪৯.৪ ওভারে ২৬০/১০ (আনিসুল ৪১, মাহমুদুল ১২৩, মাহিদুল ৩৩; চেইস ৭-১-৪৪-১, অ্যাডায়ার ২৭/৩, ডেলানি ৬৩/১, প্রিটোরিয়াস ৫১/২, টেক্টর ৩৭/২)।

আয়ারল্যান্ড উলভস: ৫০ ওভারে ২৫৫/৯ (ডোহেনি ৮১, অ্যাডায়ার ৪৫, রক ৩; রাজা ২২/১, শফিকুল ৫৭/২, তানভির ৩৯/২, সাইফ ৩১/৩, শামীম ৩৮/১)।

ফল: বাংলাদেশ ইমার্জিং দল ৫ রানে জয়ী।

সিরিজ: ৫ ম্যাচ সিরিজে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল ৪-০ ব্যবধানে জয়ী।

ম্যান অব দা ম্যাচ: মাহমুদুল হাসান জয়।

ম্যান অব দা সিরিজ: মাহমুদুল হাসান জয়।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top